Archive for the ‘Nazrul Geeti(নজরুল গীতি)’ Category

 

 

শিরোনামঃ শিকল-পরার গান
নজরুল গীতি

 

 

এই    শিকল-পরা ছল মোদের এ শিকল-পরা ছল
এই    শিকল পরেই শিকল তোদের কর্‌ব রে বিকল।।

তোদের   বন্ধ কারায় আসা মোদের বন্দী হতে নয়,
ওরে       ক্ষয় করতে আসা মোদের সবার বাঁধন-ভয়।
এই        বাঁধন প’রেই বাঁধন-ভয়কে করবো মোরা জয়,
এই        শিকল-বাঁধা পা নয় এ শিকল-ভাঙ্গা কল।।

তোমরা    বন্ধ ঘরের বন্ধনীতে কর্‌ছ বিশ্ব গ্রাস,
আর        ত্রাস দেখিয়েই কর্‌বে ভাবছো বিধির শক্তি হ্রাস।।
সেই        ভয়-দেখানো ভূতের মোরা করব সর্বনাশ,
এবার       আন্‌বো মাভৈঃ-বিজয়-মন্ত্র বল-হীনের বল।।

তোমরা    ভয় দেখিয়ে কর্‌ছ শাসন, জয় দেখিয়ে নয়;
সেই        ভয়ের টুটিই ধর্‌ব টিপে, কর্‌ব তারে লয়।
মোরা       আপনি ম’রে মরার দেশে আন্‌ব বরাভয়,
মোরা       ফাঁসি প’রে আন্‌ব হাসি মৃত্যু-জয়ের ফল।।

ওরে        ক্রন্দন নয় বন্ধন এই শিকল-ঝঞ্ঝনা,
এ যে       মুক্ত-পথের অগ্রদূতের চরণ বন্দনা!
এই         লাঞ্জিতেরাই অত্যাচারকে হান্‌ছে লাঞ্জনা,
মোদের    অস্থি দিয়েই জ্বল্‌বে দেশে আবার বজ্রানল।।

Advertisements

 

 

 

শিরোনামঃ তেপান্তরের মাঠে
নজরুল গীতি

তেপান্তরের মাঠে বধু হে
একা বসে থাকি
তুমি যে পথ দিয়ে গেছ চলি
তারি ধুলা মাখি হে
একা বসে থাকি

যেমন পা ফেলেছো গিরিপথে
রাঙা পথের ধুলাতে
তেমনি করে আমার বুকে
চরণ যদি বুলাতে
আমি খানিক জ্বালা ভুলতাম
ঐ মানিক বুকে রাখি হে
একা বসে থাকি

আমার খাওয়া-পরায় নাই রুচি আর
ঘুম আসেনা চোখে
ঘুম আসেনা চোখে
আমি বাউরি হয়ে বেড়াই পথে
দেখে হাসে পাড়ার লোকে
হাসে পাড়ার লোকে
আমি তালপুকুরে যেতে নারি
এ কি তোমার মায়া হে
ঐ কালো জলে দেখি
তোমার কালো রুপের ছায়া হে
আমায় কলঙ্কিনি নাম রটিয়ে
তুমি দিলে ফাঁকি হে
একা বসে থাকি

তেপান্তরের মাঠে বধু হে
একা বসে থাকি
একা বসে থাকি
একা বসে থাকি

 

 

 

শিরোনামঃ আলগা করো গো খোপার বাঁধন
নজরুল গীতি

ডাউনলোড লিঙ্কঃ ক্লিক করুন
______________________

আলগা করো গো খোপার বাঁধন
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
আলগা করো গো খোপার বাঁধন
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি

বিনোদ বেনির জরিন ফিতায়
বিনোদ বেনির জরিন ফিতায়
আন্ধা ইশক মেরা কাস গায়ি
আন্ধা ইশক মেরা কাস গায়ি
আলগা করো গো খোপার বাঁধন
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি

তোমার কেশের গন্ধে কখন
লুকায় আসিলো লোভী আমার মন
তোমার কেশের গন্ধে কখন
লুকায় আসিলো লোভী আমার মন
বেহুঁশ হো কার গির পারি হাথো ম্যায়
বেহুঁশ হো কার গির পারি হাথো ম্যায়
বাজু বান্ধ ম্যায় বাস গায়ি
বাজু বান্ধ ম্যায় বাস গায়ি
আলগা করো গো খোপার বাঁধন
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি

কানেরও দুলে প্রাণ রাখিলে বিধিয়া
আঁখ ফিরা দিয়া চোরি কার নিন্দিয়া
কানেরও দুলে প্রাণ রাখিলে বিধিয়া
আঁখ ফিরা দিয়া চোরি কার নিন্দিয়া
দেহেরও দেউরীতে বেড়াতে আসিয়া .
দেহেরও দেউরীতে বেড়াতে আসিয়া
অউর নেহি ওহ ওয়াপাস গায়ি
অউর নেহি ওহ ওয়াপাস গায়ি
আলগা করো গো খোপার বাঁধন
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
বিনোদ বেনির জরিন ফিতায়
আন্ধা ইশক মেরা কাস গায়ি
আন্ধা ইশক মেরা কাস গায়ি
আলগা করো গো খোপার বাঁধন
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি
দিল ওহি মেরা ফাস গায়ি

শিরোনামঃ কারার ঐ লৌহকপাট
নজরুল গীতি

কারার ঐ লৌহকপাট,
ভেঙ্গে ফেল কর রে লোপাট,
রক্ত-জমাট শিকল পূজার পাষাণ-বেদী।
ওরে ও তরুণ ঈশান,
বাজা তোর প্রলয় বিষাণ
ধ্বংস নিশান উড়ুক প্রাচীর প্রাচীর ভেদি।

গাজনের বাজনা বাজা,
কে মালিক, কে সে রাজা,
কে দেয় সাজা মুক্ত স্বাধীন সত্যকে রে?
হা হা হা পায় যে হাসি, ভগবান পরবে ফাঁসি,
সর্বনাশী শিখায় এ হীন তথ্য কে রে!

ওরে ও পাগলা ভোলা,
দে রে দে প্রলয় দোলা,
গারদগুলা জোরসে ধরে হেচ্‌কা টানে
মার হাঁক হায়দারী হাঁক, কাধে নে দুন্দুভি ঢাক
ডাক ওরে ডাক, মৃত্যুকে ডাক জীবন পানে।

নাচে ওই কালবোশাখী,
কাটাবী কাল বসে কি
দেরে দেখি ভীম কারার ঐ ভিত্তি নাড়ি
লাথি মার ভাঙ্গরে তালা,
যত সব বন্দী শালায়-আগুন-জ্বালা, আগুন-জ্বালা,
ফেল উপাড়ি।।

শিরোনামঃ কতদিন দেখিনি তোমায়
নজরুল গীতি

কতদিন দেখিনি তোমায়
তবু মনে পড়ে তব মুখখানি
স্মৃতির মুকুরে মম আজ
তবু ছায়া পড়ে রানী
কতদিন দেখিনি তোমায়

কত দিন তুমি নাই কাছে,
তবু হৃদয়ের তৃষা জেগে আছে
প্রিয় যবে দূরে চলে যায়
সে যে আরও প্রিয় হয় জানি
কতদিন দেখিনি তোমায়
তবু মনে পড়ে তব মুখখানি

হয়ত তোমার দেশে আজ
এসেছে মাধবী রাতি
তুমি জোছনায় জাগিছো নিশি
সাথে লয়ে নতুন সাথী

হেথা মোর দীপ নেভা রাতে
নিদ নাহি দুটি আঁখি পাতে
প্রেম সে যে মরিচীকা হায়
এ জীবনে এই শুধু মানি

কতদিন দেখিনি তোমায়
তবু মনে পড়ে তব মুখখানি
স্মৃতির মুকুরে মম আজ
তবু ছায়া পড়ে রানী
কতদিন দেখিনি তোমায়