Archive for the ‘LRB’ Category

 

 

 

শিরোনামঃ নীল বেদনা
কথাঃ লতিফুল ইসলাম শিবলী
কন্ঠঃ আইয়ুব বাচ্চু
ব্যান্ডঃ এল আর বি
অ্যালবামঃ ক্যাপস্যুল ৫০০ এমজি(এল আর বি & ফিলিংস)

 

রাত ঘুম নেই আমার চোখে
আছি জেগে এই চন্দ্রালোকে
নীল জ্যোৎস্নায় তুমি কোথায়
বুক ভরা শুধু দুঃখের ক্ষত
বাউলের একতারার মতো
এই আমাকে শুধু কাঁদায়
নীল বেদনা ঘিরে রয়েছে
আমায় আমায় আমায়
দূর অতীতের দুঃখ ডাকে
আমায় আমায় আমায়
নীল বেদনা ঘিরে রয়েছে
আমায় আমায় আমায়
দূর অতীতের দুঃখ ডাকে
আমায় আমায় আমায়

তুমি এ রাতে কোন সুদূরে
মৌনতায় মেতে অচেনা সুরে
চেনা আমাকে নিয়ে কাছে
তুমি যেন এক নদীর মতো
বলছ আমায় ডেকে কত
আমি তোমাকে ভালবাসি
তবু কেন যে ধূসর আমার এই পৃথিবী,
বোবা অশ্রুতে লোনা হয়ে যায় চেতনা
তবু কেন যে ধূসর আমার এই পৃথিবী,
বোবা অশ্রুতে লোনা হয়ে যায় চেতনা

তবু কেন যে ধূসর আমার এই পৃথিবী,
বোবা অশ্রুতে লোনা হয়ে যায় চেতনা
তবু কেন যে ধূসর আমার এই পৃথিবী,
বোবা অশ্রুতে লোনা হয়ে যায় চেতনা

একাকী এই শহরে আমি
সাগরের যত ক্লান্তি আছে
ধীরে ধীরে বুকে জড়াই
ক্লান্ত রাজপথ ঘুমালো যখন
তুমিও আমার কবিতা তখন
ধীরে ধীরে জেগে ওঠো

Advertisements

 

 

শিরোনামঃ চাঁদ মামা
কন্ঠঃ আইয়ুব বাচ্চু
ব্যান্ডঃ এল আর বি
অ্যালবামঃ স্বপ্ন

 

মধ্য রাতে…মাথার উপর
চাঁদটাকে….একা পাই
চাঁদ ছাড়া যে…আমার আর
আন্য কোনো..মামা নাই(২)

সুর তলি খয়ে গেছে ছিড়ে গেছে জামা
একটা চাকরি হবে, চাঁদ মামা?(২)
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা

নিজের ছায়া..নিজের কাছে
কেমন যেনো..অচেনা লাগে
ছায়া যেনো..অন্য মানুষ
চলে শুধু…আমার আগে

সুর তলি খয়ে গেছে ছিড়ে গেছে জামা
একটা চাকরি হবে, চাঁদ মামা?(২)
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা

পথে আমায়..কেউ চিনেনা
অনেক লোকের..অনেক ভীড়ে
আমার আশা..কেঁদে মরে
অবহেলায়..শুন্য নীড়ে

সুর তলি খয়ে গেছে ছিড়ে গেছে জামা
একটা চাকরি হবে, চাঁদ মামা?(২)
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা

মধ্য রাতে…মাথার উপর
চাঁদটাকে….একা পাই
চাঁদ ছাড়া যে…আমার আর
আন্য কোনো..মামা নাই(২)

সুর তলি খয়ে গেছে ছিড়ে গেছে জামা
একটা চাকরি হবে, চাঁদ মামা?(২)
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা
ও চাঁদ মামা,একটা চাকরি হবে মামা

Lyrics Courtesy: http://symonfoyez.wordpress.com/

 

 

 

শিরোনামঃ মাধবী
কন্ঠঃ আইয়ুব বাচ্চু
ব্যান্ডঃ এল আর বি
অ্যালবামঃ ফেরারী মন

চোখে সানগ্লাস ঠোঁটে হাসি
বাঁকা হাসি
তার সব কিছুতেই বড় বেশী
বাড়াবাড়ি
যে চায় সে পায় মাধবী
নয় ফুল নয় লতা মাধবী
সে নষ্ট নারী

রাতের আঁধারে তাকে শুধু দেখা যায়
লাল নীল নানান রঙের গাড়িতে
দিনের আলোতে তাকে মিশে যেতে দেকা যায়
সবার সাথে সবার সাথে
কখন কোথায় সে যে কার
সে নিজেও তা জানে না
সে শুধু জানে দেহের বিনিময়ে
খাদ্য চাই খাদ্য চাই
যে চায় সে পায় মাধবী
নয় ফুল নয় লতা মাধবী
সে নষ্ট নারী

তাকে সমাজ সভ্যতা এড়িয়ে চলে
আইনের শেকল তার পেছনে চলে
ধরা পরে ছাড়া পায় ফিরে আসে আবার
মানুষের কাছে , মানুষের কাছে
নষ্ট নারী কেন তারে বলে
সে নিজেও তা জানে না
সে শুধু জানে দেহের বিনিময়ে
খাদ্য চাই খাদ্য চাই
যে চায় সে পায় মাধবী
নয় ফুল নয় লতা মাধবী
সে নষ্ট নারী

নষ্ট সে হয়েছে কাদের ইশারায়
দুঃখ অভাব আর ক্ষুধারই জ্বালায়
নষ্ট পুরুষ সব কাছে চলে আসে
তাদের দুচোখে লোভী দৃষ্টি ভাসে
মাধবী জানে না কেমন করে
বদলে গেছে সে নষ্ট নারীতে
সংসার শান্তি এসব কিছু আর
নিলো না মাধবীকে আপন করে
যে চায় সে পায় মাধবী
নয় ফুল নয় লতা মাধবী
সে নষ্ট নারী

সময়ের আগে তাকে চলে যেতে হয়
প্রানহীন দেহখানি পৃথিবীতে রয়
নষ্ট পুরুষ সব তাকে ভুলে যায়
নতুন নষ্টা নারী পাবারই আশায়
মাধবীর মরনে কারো ব্যথা নেই
মরনের কষ্ট মাধবী জানে
মাধবীর দেহখানি জঞ্জাল হয়ে
চলে যায় কোন এক অজানায়
আজ বলি একসাথে মাধবী
নয় ফুল নয় লতা মাধবী
সে নষ্ট নারী

দুঃখ কষ্ট যার ছিলো সারি সারি
মাধবী
সে নষ্ট নারী

 

 

 

 

শিরোনামঃ সাবিত্রী রয়
কন্ঠঃ আইয়ুব বাচ্চু
ব্যান্ডঃ এল আর বি
অ্যালবামঃ স্পর্শ

 

 

লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা
বরাবরি আমি দূরন্ত খুব, ভীষণ বাধনহারা
আমার ভয়ে কাতর যেন, সেই বনগ্রামপাড়া
বাড়ির কারো শাসন বারন, মানতাম নাতো মোটে
বুকের ভেতর লাগামবিহীন বলগা হরিন ছোটে
কিশোর মনের ভাবনাগুলো আবেগ প্রবন এতো
হাজার রঙের স্বপ্ন বুনে প্রহর কেটে যেতো
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা

হঠাৎ বুকের বাম দিকটাতে কিসের যেন মায়া
একটা পুতুল মায়ার পুতুল ফেললো সেখানে ছায়া
প্রতিমার মত চাঁদমুখ তাঁর, দুচোখে লাজুক সকাল
নুপুর পায়ে ভীরু চলন, হাসিতে সুর্য আড়াল
অস্থিরতার সবকটা ক্ষন দিলাম সঁপে তাকে
আমার ভেতর অন্য আমি, নিজেকে লুকিয়ে রাখে
প্রেম প্রেম সুখে বিভোর নয়ন
স্বপ্নে সে মুখ ভাসে
এতো কাছে পেয়েও পাই না তারে, যুদ্ধ জয়ের মাসে
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা

আমি আর সে পাশাপাশি থাকি, পাশাপাশি ঘরবাড়ি
জানালায় বসে প্রতি সন্ধ্যাতে দীর্ঘশ্বাস ছাড়ি
চোখে চোখে হয় কথা বিনিময়, সাবিত্রী রয় নামে
গড়েছি বুকে তাজমহল এক, অবুঝ প্রেমের দামে
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা

ক্লাস সেভেনের বইয়ে চোখ রেখে, তার খোলা জানালাতে
পড়বার ছলে সে আমার সাথে কথা বলে দিন রাতে
ভোর রাঙ্গা সেই সময়ের কাছে স্বর্গও নয় কিছু
এমন সময় সারা পাড়া যেন নিল দুজনের পিছু
সাবিত্রী আর আমার প্রেমের কান কথা যায় রটে
এর মাঝে ভাসে অন্য ছবি মাতৃভূমির পটে
সবকিছু হয়ে গেলো এলোমেলো, উত্তাল একাত্তরে
মাকে বাঁচাবার শপথ নিয়ে, ছেলে গেলো ঘর ছেড়ে
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা

সেই অসময়ে সাবিত্রীও গেলো দেশ ছেড়ে কলকাতা
যোদ্ধাহত মন আমার কাঁদে, সজল চোখের পাটে
মাকে পেয়ে আমি হারাই তোমায়, সেই ঠিকানায় আছি
তোমাদের সেই বাড়িটাও আছে দৃষ্টির কাছাকাছি
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা

সেই জানালাতে আজো খুজে ফিরি, হারানো সে প্রতিমাকে
তুমি কি এখনো কলকাতা আছো, নাকি অন্য বাকে?
কেমন হয়েছে সংসার তোমার, কেমন হয়েছো তুমি?
তোমার প্রেমের দাম দিয়ে কেনা আমার স্বদেশ ভুমি
আর যদি কোনো পুজা পার্বনে আসো তুমি এই দেশে
হারানো প্রেমের অর্ঘ্য নিও একবার কাছে এসে
তোমার অভাবে অস্থির আমি রয়ে গেছি আজো একা
এই শেষ কথা জানাবো তোমায় আর যদি হয় দেখা
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা
লাল্লারালা লারালারালারালা
লাল্লারালা লারালারালা